মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

•সমস্ত রপ্তাণী যোগ্য পণ্যকে অনলাইন সার্টিফিকেশনের আওতায় আনা।
•পণ্য বহুমুখীকরণের মাধ্যমে মূল্য সংযোজিত পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে উৎসাহ প্রদাণ ।
•নতুন নতুন রপ্তাণী বাজার সৃষ্টিতে সহায়তা প্রদান (অস্ট্রেলিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, থাইল্যান্ড প্রভৃতি দেশে বাংলোদেশের হিমায়িত চিংড়ির বাজার সম্প্রসারণে কাজ চলছে । )
•নতুন নতুন ক্রেতার চাহিদা মোতাবেক অত্র দপ্তরের ল্যাবরেটরী পরীক্ষণের আওতা ও সুবিধা বৃদ্ধি।
•রপ্তাণীযোগ্য পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণে ‘কমন ল্যান্ডিং সেন্টার’ স্থাপন ।
•কাঁচামালের ঘাটতি পূরণকল্পে ব্যাকওয়ার্ড লিংকেজ শিল্প (সেমি ইনটেনসিভ/ ইনটেনসিভ কালচার ফার্ম, ভাইরাসমুক্ত চিংড়ি পোনা উৎপাদন হ্যাচারী (SPF Hatchery)) স্থাপনে উৎসাহ প্রদাণ ।
•ন্যাশনাল রেসিডিউ কন্ট্রোল প্লান (NRCP) ও ফ্যাক্টরীর রেসিডিউ কন্ট্রোল প্লান (FRCP)সুপরিকল্পিত ভাবে বাস্তবায়ন।
• অনলাইন মার্কেটিং অবকাঠামো ও নেটওয়ার্ক উন্নয়ন।
•সরকারী কোন প্রকল্পের সহায়তায় ই-ট্রেসিবিলিটি বাস্তবায়ন।
•অত্র দপ্তরের জনবল বৃদ্ধি সাপেক্ষে মাঠ পর্যায়ের সকল স্তরে মনিটরিং কার্যক্রম বৃদ্ধিকরণ।
•কাঁচামালের প্রাচুর্য ও গুণগত মান উন্নয়নে ‘কন্ট্রাক্ট ফার্মিং’ চালুকরণ।
•‘গুচ্ছ খামার’/ ‘ক্লাস্টার্ড ফার্মিং’ চালুর মাধ্যমে কাঁচামালের প্রাচুর্য ও গুণগত মান উন্নয়ন।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter